যারা থার্ড পারসন একশন গেম খেলতে ভালবাসেন তাদের জন্য আমার আজকের এই রিভিউ। Capcom অসাধারন এই সিরিজ এর গেমটির জন্য বিখ্যাত হয়েছে। একশন প্রিয় গেমারদের জন্য এই গেমটির কথা বলাই বাহুল্য। আমি নিজে বিশেষ করে এই গেমটির একনিষ্ঠ ভক্ত। আজ আমি আপনাদের কাছে capcom এর বিখ্যাত গেম ‘ডেভিল মে ক্রাই ৪’ নিয়ে আলচনা করব।

untitledএই গেমটির প্রথম দুটি সিরিজ রিলিজ হয়েছিল প্লেস্টেশনের জন্য, গেমটি একশন গেমারদের জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে আসে এর তৃতীয় সিরিজের গেমটির মাধ্যমে। capcom ডেভিল মে ক্রাই ৩: দান্তে’স এয়কনিং গেমটি সর্বপ্রথম রিলিজ করে ২০০৫ সালে  প্লেস্টেশনের জন্য এবং ২০০৬ সালে পিসি এর জন্য। গেমটি বিশেষ করে জনপ্রিয়তা পায় এর স্টাইলিস একশনের জন্য। খেলার সময় গেমের মূল চরিত্র দান্তের প্লেইং স্টাইলের জন্য গেমটি হয়ে ওঠে অত্যন্ত আকর্ষণীয়। ২০০৮ সালে capcom এর রিলিজ হওয়া  ডেভিল মে ক্রাই ৪ এ যোগ হয় আর নতুন নতুন একশন স্টাইল, এই গেমের মূল চরিত্র নেরো-র একশন স্টাইলএ আসে বিচিত্রতা। আরও নতুন চোখ ধাঁধানো একশন সবাইকে মুগ্ধ করে।

devil_may_cry3

Devil may cry 3গেমটির পটভূমি আলোচনা করতে গেলে ডেভিল মে ক্রাই ৩ থেকে শুরু করতে হবে। গেমের নায়ক দান্তের বাবা ছিলেন একজন বীর যোদ্ধা ডেভিল স্প্রাডা, যিনি ২০,০০০ বছর পূর্বে পৃথিবীতে আসেন মানবজাতিকে ডেভিলদের করাল গ্রাস থেকে রক্ষা করতে, ডেভিলদেরকে ধ্বংস করে নরকের দরজা চিরতরে বন্ধ করে দেন। যাওয়ার আগে তিনি পৃথিবীর একজন মানব মহিলাকে বিয়ে করেন। প্রথম ডেভিল ও মানব রক্তমাংসের সংমিশ্রণে জন্মগ্রহন করে দুই জমজ অর্ধ শয়তান – অর্ধ মানব শিশুঃ দান্তে ও ভারজিল। দুই সন্তানের গলায় পরিয়ে দেনে একটি আমুলেট এর দুইটি খণ্ডাংশ, যেটি দিয়ে তিনি নরকের দরজাটিকে বন্ধ করেছিলেন। ডেভিল মে ক্রাই ৩ এর কাহিনী গড়ে ওঠে এ দুইজন কে নিয়ে। দান্তে হয় এ গেম সিরিজটির নায়ক, ভারজিল থাকে খল চরিত্রের ভূমিকায়। ভারজিল চায় তার বাবার আটকে দেওয়া নরকের দরজাটিকে পুনরায় খুলতে। এদিকে দান্তে নিজের পায়ে দাঁড়াতে চায়। সে একটি শপ সেন্টার খোলে, যেটাতে বিভিন্ন স্থানে ডেভিলদের ধ্বংস করতে অর্ডার নেয়। কড়া টাকার  বিনিময়ে সে এ কাজ করে। এদিকে ভারজিল তার বিশ্বস্ত আরখাম কে দান্তের কাছে পাঠায় তাকে দলে নেওয়ার জন্য আর সে তা করে এক অতর্কিত আক্রমনের মাধ্যমে। কিন্তু ডেভিল হান্টার দান্তের কাছে তা ছিল নাকের নস্যি মাত্র। তার দোকান বিধ্বস্ত হয়। সে ভারজিলের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ায়। পথে থাকে নানা বাধা বিপত্তি। শেষ পর্যন্ত দান্তে ভারজিলকে পরাস্ত করতে সক্ষম হয়। ভারজিল আত্যহত্যা করে।

The-secret-of-the-game-Devil-May-Cry-4ডেভিল মে ক্রাই ৪ এর কাহিনী তে প্রেক্ষাপট পরিবর্তন হয়েছে। এ গেমের মূল চরিত্র হিসাবে আছে নেরো। গেমের শুরুতেই কাহিনিটি হয় এরকমঃ নেরো যাচ্ছে  আপেরা হাউস এর দিকে যেখানে চলছে বাৎসরিক “স্প্রাডা অন্তরধান” অনুষ্ঠান। সকল স্প্রাডার শিষ্যগন অধীর অপেক্ষায় বসে কিরি-র অপেরা শুনছে। কিরি অপেক্ষা করছে কখন তার ভালবাসার মানুষ নেরো আসবে তার গান শুনতে। শেষ পর্যন্ত নের এসে উপস্থিত হয়। গানের পরপরই শুরু হয় তাদের ঈশ্বর স্প্রাডার স্মরণার্থে আলচনা। আলোচনা করে তাদের প্রিয়েস্ট সাঙ্কটাস। এমন সময় অতর্কিতে আক্রমন চালায় এক অপরিচিত ব্যাক্তি দান্তে। হত্যা করতে চায় সাঙ্কটাসকে। নেরো তখন তাকে ঠেকাতে চায়। ভয়ঙ্কর এক যুদ্ধে মেতে ওঠে দুইজন। এসমইয় নেরোর ডেভিল পাওয়ার আনলিস হয়। শক্তি ফিরে পায় তার ডেভিল হ্যান্ড। কিন্তু সে দান্তেকে ঠেকাতে ব্যার্থ হয়। নেরো বের হয় এই অপরিচিত দান্তেকে পাকড়াও করার আশায়। পথে থাকে ভয়ঙ্কর সব ডেভিল। কিন্তু এক সময় সে সত্য ঘটনা জানতে পারে। জানতে পারে সাঙ্কটাস নরকের দরজা খোলার চেষ্টা করছে, যাকে ঠেকাতে পারে “ইয়ামাটো” সোর্ড আর নেরোর ডেভিল হ্যান্ড। সাঙ্কটাস নেরো আর দান্তে কে ঠেকাতে নানা ধরনের চেষ্টা করে। কিন্তু তারা দুইজন যেন অপ্রতিরোধ্য, বিশেষ করে দান্তে।

1249373424_1280x1024_kyrie-in-devil-may-cry-4ডেভিল মে ক্রাই ৩ গেমটিতে আপনারা দান্তেকে নিয়ে খেলতে পারবেন। গেমটি একবার শেষ করলে আপনারা ভারজিলকে নিয়েও খেলতে পারবেন। ডেভিল মে ক্রাই ৪ এ আপনারা খেলবেন মূলতঃ নেরো কে নিয়ে, তবে বেশ কিছু স্টেজে দান্তেকে নিয়েও খেলতে হবে। কিছু স্টেজে আপনাদেরকে পাজল সমাধান করতে হবে। খেলার সময় আপনারা অরবিট পাবেন যা দিয়ে আপনারা বিভিন্ন ইকুইপমেন্ট কিনতে পারবেন। এছাড়া বোনাস সৌল পাবেন যা দিয়ে বিভিন্ন স্টাইল একশন আনলক করতে পারবেন। নেরোকে নিয়ে একটি স্টাইল একশনেই খেলতে পারবেন কিন্তু গেমটির দুটি ভার্সনেই আপনারা দান্তেকে নিয়ে খেলতে পারবেন ৪টি ভিন্ন স্টাইলেঃ ট্রিকস্টার, সোর্ডমাস্টার, গানস্লিন্‌জার ও রয়েলগার্ড। ডেভিল মে ক্রাই ৩ তে চারটি আলাদাভাবে কিন্তু ডেভিল মে ক্রাই ৪ এ চারটি স্টাইল একসাথে কিছু বাটন চেপে পরিবর্তন করতে পারবেন।

devil-may-cry-4-wallpaper-nero-vs-danteডেভিল মে ক্রাই ৩ এর গ্রাফিক্স ততটা ভাল নয় কারণ এটা পুরানো গেম, কিন্তু ডেভিল মে ক্রাই ৪ এর গ্রাফিক্স মারাত্মক, একশনও খুব স্টাইলিশ। যারা এই গেমটি প্রথম খেল্বেবেন তাদের কাছে গেম কন্ট্রোল অনেক কঠিন মনে হতে পারে। কিন্তু একবার আয়ত্তে এসে গেলে পুরো ব্যাপারটা অনেক সোজা মনে হবে। আসুন একবার গেম দুটির রেটিং দেখে নেওয়া যাকঃ

ডেভিল মে ক্রাই ৩ :

* ACB: MA15+
* CERO: C15+
* ESRB: M

* PEGI: 16+

1UP.com     9 / 10
Eurogamer     8 / 10
Game Informer     9 / 10
GamePro     4.5/5 stars
GameSpot     8.6 / 10
GameSpy     4/5 stars
GameTrailers     9 / 10
GameZone     9 / 10
IGN     9.6 / 10
Play Magazine     92%
PSM     9.5 / 10
GameDaily     9 / 10
Gaming Target     9.1 / 10
JIVE Magazine     5/5 stars
Kikizo     9.1 / 10

ডেভিল মে ক্রাই ৪:

PEGI: 16+
1UP.com     A− (X360)
Edge             8/10[35]
Famitsu     35/40 (PS3)
Game Informer     9/10
GameSpot     8/10 (PC)
GameSpy     4/5
GameTrailers     8.6/10
GameZone     9 of 10
IGN             8.7/10 (PS3)
8/10 (PC)

গেমারদের অনুরোধ করব ডেভিল মে ক্রাই ৩ আগে খেলার জন্য। তাহলে ডেভিল মে ক্রাই ৪ গেমটি খেলতে আপনাদের মনে অনেক আগ্রহ জন্মাবে। ডেভিল মে ক্রাই সিরিজের এনিমেশন মুভি অনেকদিন ধরেই টিভি চ্যানেলে চলে আসছে আর অনেক জনপ্রিয়তাও পেয়েছে। গেমটির জনপ্রিয়তার জন্য ‘ডেভিল মে ক্রাই  মুভি’ বানানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে হলিউড থেকে, তবে এখনও রিলিজ ডেট ঠিক করা হয় নি।

গেইমটি খেলতে যা যা প্রয়োজন হবে…

মিনিমাম সিস্টেম রিকোয়ারমেন্ট

OS: Windows XP/7
Processor: Intel Pentium 4 @ 3.0 GHz / AMD Athlon 64 3000+
Memory: 512 Mb
Hard Drive: 8 Gb free
Video Memory: 256 Mb
Sound Card: DirectX 9.0 Compatible
DirectX: 9.0c
Keyboard
Mouse
DVD Rom Drive

রিকমান্ডেড রিকোয়ারমেন্ট

OS: Windows 7
Processor: Intel Core 2 Duo @ 2.4 GHz / AMD Athlon 64 X2 4800+
Memory: 2 Gb
Hard Drive: 8 Gb free
Video Memory: 512 Mb
Video Card: nVidia GeForce 8800 / ATI Radeon HD 3870
Sound Card: DirectX Compatible
DirectX: 10
Keyboard
Mouse
Other Controllers: Game pad
DVD Rom Drive

যেসব গ্রাফিক্স কার্ড দিয়ে খেলা যাবে

ATI RADEON HD 2000/3000/4000/5000/6000 series,

NVIDIA GeForce 8/9/100/200/300/400/500 series

Untitledডেভিল মে ক্রাই  সিরিজের পরবর্তী ভার্সন ডেভিল মে ক্রাই ৫ রিলিজ দিতে যাচ্ছে capcom।  কিন্তু বরাবর চলে আসা দান্তের মুখোবয়ব পরিবর্তন করতে যাচ্ছে তারা। দান্তের ছিল সাদা চুল আর ফর্সা ও উঁচু- লম্বা। কিন্তু এ গেমে তারা চেহারা পরিবর্তন করে কাল চুল ছোট করে ছাঁটা- এভাবে তৈরি করেছে। কেন করেছে জানিনা, এর জন্য গেমটির জনপ্রিয়তা কমবে কিনা জানিনা তবে আমি বেশ মর্মাহত। নিচের ভিডিওতে ট্রেইলার দেখতে পারেন…

DEVIL MAY CRY 5

comments

8 কমেন্টস

    • ধন্যবাদ খালিদ ভাইকে… আমি এই গেমটির অনেক বড় একজন ভক্ত। আশা করি আপনারও ভাল লাগবে। বিশ্বাস না করলে খেলে দেখেন…

  1. ভাই আমার মনে হয় এটা capcom এর একটা চালাকি… devil may cry 5 এর ডান্টে এই কালো চুলের ছেলে নয় বরং সে একজন সাইড ক্যারেক্টার হবে। খুব সুন্দ্র রিভিও দিয়েছেন, আমি দিতে চেয়েছিলাম কিন্তু আপনি আগে দিয়ে ফেললেন 😛
    যাই হোক এই গেম টা খেলার জন্য নতুন পিসি কিনেছিলাম এস,এস,সি এর পরে… A masterpiece that doesn’t come everyday!

    • rafeed ভাই আপনার ধারনা ভুল, কারণ উপরের ছবিতে আপনি যাকে দেখছেন সেই হল ডেভিল মে ক্রাই ৫ এর দান্তে। গেমটির কাহিনী সম্পূর্ণ পরিবর্তন করা হয়েছে। পটভূমি আমি যতদূর জানি, এই গেমে দান্তে কে সাইকো ইভোলুসন ট্রিটমেন্ট এর মাধ্যমে তৈরি করা হয়। মজার ব্যাপার হল “ভারজিল” আবার ফিরে আসছে এই গেমে।

  2. বিপুল ভাইতো মারাত্নক রিভিউ লিখেছেন 😀 এক বস্তা ধইন্যাপাতা আপনার জন্য 😉 আর গেইমটাও চরম মনে হচ্ছে। খেলতে হবে…

    • ইমতিয়াজ ভাই আমি ধইন্যাপাতা খাই কিন্তু এক বস্তা খাইতে পারব কিনা জানিনা

  3. রিভিউ টা ভালো হইছে …………………..আপনাকে ধন্যবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.