মোবাইল ফোন এবং ট্যাবের জন্য গুগলের এন্ড্রয়েড ভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেম অন্যতম পরিচিত ওএস। বর্তমানে প্রায় সব অ্যাপ ডেভেলপার জনপ্রিয় এন্ড্রয়েড নির্ভর অ্যাপ তৈরি নিয়ে ব্যস্ত। আমাদের অনেকেরই পকেটে স্মার্টফোন আছে কিন্তু নিম্ন মানের বা লো-কনফিগারের কারনে সব গেমস খেলা সম্ভব হয়ে ওঠে না। যেখানে আপনাদের বন্ধুরা প্রায় সব মজার মজার গেমস খেলছে।

হয়তো আপনারা সবাই শুনে থাকবেন যে, উইন্ডোজ ভিত্তিক কম্পিউটারে এন্ড্রয়েড অ্যাপ চালানো যায় তবে কিভাবে সেটি চালাতে হয় জানা আছে কি আপনার?

যদি না থেকে থাকে তবে আজকে আপনাদের জন্য শেয়ার করবো অসাধারণ ৫টি এমুলেটর। যেগুলো ব্যবহার করে খুব সহজে আপনি এন্ড্রয়েড গেমস পিসিতে চালাতে পারবেন।

AndroidonWindows7

#১ BlueStacks

এটি একটি অসাধারণ উইন্ডোজ অ্যাপ। গুগলে সার্চ করে খুব সহজে ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারবেন। মজার ব্যাপার হল এটি দেখতে অনেকটা এন্ড্রয়েড চালিত অ্যাপ এর মতো। চাইলে গুগল প্লে-স্টোর থেকে পছন্দের অ্যাপ ডাউনলোড’ও করে নিতে পারবেন।

মিনিমাম সিপিইউ কনফিগার-

র‍্যাম ২জিবি, হার্ডডিস্ক স্পেস ৯জিবি, মোটামুটি ভালো মানের গ্রাফিক(নতুন মডেলের মাদার বোর্ড হলে ডিফল্ট গ্রাফিকেই চলবে), এবং ডুয়াল কোর প্রসেসর।

অ্যাপটি ডাউনলোড করতে যেতে হবে এই লিংকে

#২ Android SDK-

এটি মূলত কোন অফিসিয়াল এমুলেটর না, কারন এর ব্যবহার অ্যাপ টেস্ট বা বিল্ড কোয়ালিটি চেক করে দেখার জন্য। আপনি এটিকে ডেভেলপারদের জন্য প্রয়োজনীয় একটি টুলস্‌ বলতে পারেন।

আমি ব্যক্তিগত ভাবে “Android SDK” আপনার জন্য রেকমেন্ড করবো না কারন আমার কাছে এটি সেই মান্ধাতার আমলের একটি অ্যাপ মনে হয়। দ্বিতীয়ত খুবই স্লো।

এমুলেটর টি চালানোর জন্য আপনার পিসি কনফিগার যেমন হতে হবে-

যেকোনো উইন্ডোজ দিয়ে এটি চালাতে পারবেন যেমন, এক্সপি, উইন্ডোজ ৭/৮ (৩২ বা ৬৪ বিট)। র‍্যাম মিনিমাম ২ জিবি, গ্রাফিক মোটামুটি ভালো হতে হবে। হার্ডডিস্ক স্পেস ৪০০এমবি।

অ্যাপটি ডাউনলোড করতে যেতে হবে এই লিংকে

#৩ Genymotion-

মোটামুটি ভালো মানের গেমস বা অ্যাপ চালাতে হলে “Genymotion” কে অসাধারণ বলা যেতে পারে। এটিকে BlueStacks এর অল্টারনেটিভ’ও বলা যেতে পারে।

মজার ব্যপার হচ্ছে Genymotion এ অসাধারণ একটি ফিচার আছে “ড্রাগ অ্যান্ড ড্রপ” যেকোনো অ্যাপ বা গেমেস খেলতে চাইলে শুধু সেটিকে নিয়ে এসে Genymotion অন স্ক্রিনের ওপরে ছেড়ে দিলেই সেটি প্লে বা ওপেন হয়ে যাবে।

Genymotion চালানোর জন্য কেমন কনফিগারের পিসি প্রয়োজন-

এটিও ঠিক আগের মতো পিসি কনফিগার চাইবে, ২জিবি র‍্যাম, ৪০০এমবি হার্ডডিস্ক স্পেস, মোটামুটি ভালো মানের গ্রাফিক এবং মিনিমাম ডুয়াল কোর প্রসেসর।

অ্যাপটি ডাউনলোড করতে যেতে হবে এই লিংকে

#৪ Manymo Browser

নাম শুনেই বুঝতে পারছেন যে, এটি মূলত ব্রউজার বেজ এমুলেটর। এটি চালাতে আপনার তেমন কোন হাই কনফিগারের প্রয়োজন নেই। শুধু প্রয়োজন আপনার ইচ্ছা।

কিভাবে চালাবেন? খুবই সহজ, এই লিংকে যান এবং বর্ণনা অনুযায়ী কাজ করে যেকোনো গেমস প্লে করুন আপনার পিসিতে।

#৫ Live Android-

এটি একটি স্বয়ং শম্পুর্ন ওএস আপনি চাইলে উইন্ডোজের পাশাপাশি এটি ব্যবহার করতে পারবেন। আরও বিস্তারিত ধারণা এবং অ্যাপটি ডাউনলোড করতে চাইলে যেতে পারেন এই লিংকে

এগুলো ছিল আমার জানা মতে সেরা এমুলেটর। এগুলোর বাইরেও আরও অনেক এমুলেটর আছে যেগুলো সম্বন্ধে আপনাদের হয়তো ভালো ধারণা থাকতে পারে।

চাইলে কমেন্ট বক্সে সেগুলো শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিতে পারেন।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.