উকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়াস আসাঞ্জ শেষ পর্যন্ত গ্রেপ্তার হলেন ইংল্যান্ডে। উইকিলিকসের কাজের জন্য সুইডেন ভ্রমনে গিয়ে নারী ঘটিত কেলেংকারীতে জড়িয়েছিলেন বলে তার বিরুদ্ধে সুইডেনের অভিযোগ  পরবর্তিতে ইন্টারপোলে প্রেরণ করা হয়। তিনি নিজেই আত্নসমর্পন করেছেন বলে জানা যায়। এদিকে বিকেলে তিনি জামিন আবেদন করলেও তা মঞ্জুর করা হয়নি এবং ১৪ই ডিসেম্বর আরেকটি শুনানি হবে বলে জানা গেছে।

উইকিলিকসের মুখপাত্র ক্রিস্টিন রাফসন জানান, উইকিলিকসে আগের মতোই নিজের কর্মকান্ড পরিচালিত হবে।

আসাঞ্জ জানান, অস্ট্রেলিয়ার উচিৎ  তার পাসে এসে দাড়ানো (যেহেতু তিনি একজন অস্ট্রেলিয়ান নাগরিক)। তিনি আরো বলেন যে, উইকিলিকসের মতো অনেক মিডিয়াই একই রকম তথ্য ফাঁস করেছে তাতে কোন সমস্যা হয় নি। আমেরিকার এমবাসি কেবলের তথ্য শুধু তার ওয়েবেই প্রকাশিত হয় নি বরং বড় বড় সংবাদ মাধ্যম গার্ডিয়ান, নিউইয়র্ক টাইমস সহ অনেক সংবাদ মাধ্যমেই প্রকাশিত হয়েছে।

উল্লেখ্য যে এর আগে,

১. উইকিলিকসের আমাজন ডাটাসেন্টার বন্ধ করা হয়।assange-225

২. পেপ্যাল একাউন্ট বন্ধ করা হয়।

৩. ডিএনএসটিও বাতিল করে দেয় এবং ৫০৭+ মিরর ডোমেইনে সাইটটি সচল রয়েছে।

৪. টুইটার তাদের ট্রেন্টিং টপিক থেকে উইকিলিকস শব্দটি সরিয়ে দেয়।

৫. সুইডেনের ব্যাঙ্ক একাউন্টও বন্ধ করা হয়।

সবচেয়ে মজার বেপার হলো এত কিছু হওয়ার পরেও উইকিলিকসের জনপ্রিয়তা কল্পনাতীত। অনেকে এটাকে নতুন ধরনের সাংবাদিকতা বলে আখ্যা দিয়েছে। সারা বিশ্বে বিশাল জনশক্তি বিনা বেতনে কর্মরত আছে অবাধ তথ্যপ্রবাহের লক্ষ্যে।

comments

7 কমেন্টস

  1. যদিও তিনি নিজেই পুলিশের কাছে ধরা দিয়েছেন, তবু এ গ্রেফতারের নিন্দা জানাই।

    এখন একমাত্র দাবী, কোনভাবেই যেন তাকে নিকৃষ্ট আমেরিকানদের কাছে তুলে না দেয়া হয়। 🙁

  2. তিনি নিজে ধরা দিলেও তাকে অবশ্যই এটি করতে চাপ দেয়া হয়েছিল। আর তিনি যা করেছেন তা সত্যি বীরের মত। আমেরিকার ক্ষমতার ভয়কে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়েছেন।

      • আমেরিকার ক্ষমতাকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়েছেন, এ জন্যে তাঁকে অভিনন্দন। কিন্ত ভাই, প্রত্যেকটা দেশের সরকারের গোপন কিছু ব্যাপার থাকে; সেই গোপনীয়তাকে বুড়ো আঙ্গুল দেখানো কি ঠিক হয়েছে?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.