পাহাড়ি শূকরের হাড় ছবি সূত্রঃ ইন্টারনেট

অলংকার তৈরি করা কোন নতুন বিষয় নয়, এটি বিজ্ঞানীরা আগেই জানিয়েছন। তবে নতুন একটি গবেষণায় এবার উঠে এল বরফ যুগের মানুষেরাও অলংকার তৈরি করতে পছন্দ করত। গুহায় বসবাসকালীন সময়টিতে তারা কেবলমাত্র যে নিজেদের কিভাবে টিকিয়ে রাখবে তাই নয়, বরং তারা কি করে নিজেদের অবসর সময়টিকে কাজে লাগাত তা নিয়েই একটি গবেষণা করেছেন বিজ্ঞানীরা। ইন্দোনেশিয়ায় সম্প্রতি এমন একটি গুহা আবিষ্কৃত হয়েছে যেখানে বরফ যুগের মানুষের কিছু অলংকার তৈরির আলামত পাওয়া গিয়েছে। বিজ্ঞানীরা আগে ধারণা করতেন এই মানুষেরা শিল্প বা কলার দিক থেকে হয়ত পিছিয়ে ছিল, কিন্তু নতুন এই আবিষ্কার বিজ্ঞানীদের আবার ভাবতে শুরু করিয়েছে।

ওয়ালেসিয়ার বরফ গুহা ছবি সূত্রঃ ইন্টারনেট
ওয়ালেসিয়ার বরফ গুহা
ছবি সূত্রঃ ইন্টারনেট

যে অলংকারটি পাওয়া গিয়েছে তা কোন স্বর্ণালংকার নয়। তবে এটি যে কোন মহামূল্যবান অলংকার থেকে কম নয়, তাও জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। পাহাড়ি শূকর ও হরিণের হাড় থেকে নেকলেস জাতীয় এই অলংকার তৈরি করেছে প্রাচীন যুগের মানুষ। এর সময়কাল আজ থেকে প্রায় ২২,০০০ বছর পূর্বের।

১০০০ মাইল বিস্তৃত ইন্দোনেশিয়ার ‘ওয়ালেসিয়া’ নামক স্থানে প্রত্নতাত্ত্বিকেরা এই নতুন আবিষ্কৃত অলংকারটি খুঁজে পেয়েছেন। এই বস্তুটি পাবার সাথে সাথে আরো নতুন কিছু বিষয় উন্মোচিত হয়েছে। যেমন, অস্ট্রেলিয়া মহাদেশে উপনিবেশবাদ কেমন করে ছড়িয়ে পড়ল কিংবা ৪৭,০০০ বছর পূর্বে ওয়ালেসিয়া অঞ্চলের মানুষের জীবনাচরণ কেমন ছিল, তা নিয়ে নতুন করে গবেষণার বিষয়বস্তু খুঁজে পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

ওয়ালেসিয়ার এই প্রান্তরে ছোট বড় প্রায় ২০০০ ভূ-খন্ড রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার গ্রিফিথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এডাম ব্রাম বলেন এসব ভূখন্ডের সবকয়টিতে মানুষের আবাস ছিল না। খুব বেশি হলে এখানে ৬-৭টি অঞ্চলের মাঝে মানুষের বসতি ছিল।

বরফ মানবের তৈরিকৃত অলংকার  ছবি সুত্রঃ ইন্টারনেট
বরফ মানবের তৈরিকৃত অলংকার
ছবি সুত্রঃ ইন্টারনেট

বিখ্যাত ছায়াছবি লর্ড অব দ্য রিংস এর “হবিট” নামক চরিত্রটির অস্তিত্ব থাকলেও থাকতে পারে, এই ধারণাটি প্রথম ওয়ালেসিয়ায় প্রাপ্ত একটি ফসিল থেকেই ধারণায় আসে। ২০১৪ সালে এর কিছু গুহায় প্রাপ্ত গুহাচিত্র দেখে বিজ্ঞানীরা অবাক হয়ে যান। কারণ, প্রায় ৫০,০০০ বছর আগের মানুষ কলা ও চিত্র নিয়ে এতটুকু দক্ষ ছিল তা তাদের ধারণায় ছিল না।

এই নতুন আবিষ্কার বিজ্ঞানীদের কতটুকু নতুন ধারণার সুযোগ দেয়, সেটিই এখন দেখবার বিষয়।

সূত্রঃ লাইভ সাইন্স

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.