শিরোনাম ভুল হয়নি। সবার পছন্দের না, বরং অপছন্দের ভিডিও। মাত্র এক মাসেই ১ মিলিয়ন এর বেশি ডিজলাইক নিয়ে শীর্ষ স্থান দখল করেছে মিউজিক ভিডিওটি। আর এর আগে জাস্টিন বিইবার এর একটি মিউজিক ভিডিও ছিল সবার অপছন্দের এবং সেটিও ১ মিলিয়নের বেশি বার ডিজলাইক পাওয়ার গৌরব! অর্জন করে 😛 প্রথমেই দেখুন ভিডিওটি, তারপর এটি নিয়ে কিছুক্ষন প্যাচাল পাড়বো।

ইউটিউবে প্রায় ৬৫ মিলিয়ন বার দেখা হয় ভিডিওটি। আর যারা দেখেছেন, তাদের মোটামুটি এক দশমিক নব্বুই ভাগই তা অপছন্দ করেছেন। কিন্তু এর কারন কি? ভিডিওটি আমিও বেশ কয়েকবার দেখলাম। প্রথমত এটি মোটেও ক্রিয়েটিভ কিছু না। তারউপর রেবেকার গলা একদম ফালতু। অনেকটা হাঁসের মত 😛 সকালে ৭টায় ঘুম থেকে উঠে সিরিয়াল খেয়ে নাস্তা করে বাসস্টপে যায় স্কুলের বাস ধরার উদ্দ্যেশে। কিন্তু এ কি!! স্কুলে না গিয়ে বন্ধুদের পাল্লায় পড়ে কনভার্টিবল এ করে ফ্রাইডে’, ফ্রাইডে করতে হয় হাওয়া খেতে থাকে আর প্যাক প্যাক করতে থাকে। গাড়ীতে উঠার আগে বুঝতেও পারছিলোনা কোন সিটে বসবে। গাড়িতে উঠলো সকালে, কিন্তু একটু পরেই রাত হয়ে গেল 😕 ও হ্যাঁ, গানের মধ্যে কিন্তু আপনাকে সাত দিনের নামও শিখিয়ে দিবে রেবেকা আপা 😛 আর উইক এন্ড এর দিনগুলোরও বিশদ বর্ননা আছে। সব মিলিয়ে এইতো কাহিনি।

অবশ্য টাকাও তারা কিছু কামিয়ে নিয়েছে। রেবেকা আপা আর আর্ক মিউজিক ফ্যাক্টরি মিলে মোটামুটি ৪০,০০০ ডলারের মত কামিয়েছে ইউটিউব থেকে। আর আইটিউনস থেকে আরও কিছু। তবে ভিডিওটি রেকর্ড সংখ্যাক ডিজলাইক খাওয়ার পর রহস্যজনকভাবে এক ঘন্টার জন্য উধাও হয়ে যায়। ভিডিওটি থেকে এড মুছে দেয়া হয়। আর অফিসিয়ালি ইউটিউবের সবচেয়ে অপছন্দের ভিডিওর খেতাব নিজের ঘরে নিয়ে যান রেবেকা আপা।

comments

21 কমেন্টস

  1. রাস্তার ভিক্ষুকদের কথা মনে পড়লো। যেই ভিক্ষুক যত বেশি কুৎসিত সে তত বেশি ইনকাম করে। রেবেকা আপারে সবাই অপছন্দ করার কারনেও ইনকাম ভালই করছে। :mrgreen:
    তয়, যারা ডিজলাইক মারছে তাদের বেপারটা বুঝলাম না, তারাই তো অরে ডিজলাইক মাইরা হিট বানাইয়া দিল, লাভ হইলো রেবেকা আপা, ইউটিউব আর আইটিউনসের 😆 বিজ্ঞান-প্রযুক্তির একটা পোষ্ট ও বাড়লো :mrgreen:

  2. হা হা হা…।দেখসিলাম কিছুদিন আগে।আমেরিকান রা তো এইটা নিয়া কথা বলতে বলতে মুখে ফেনা তুলে ফেলসে twitter এ।কে যেন এই গান টা কে “Worst song ever” Title ও দিয়েছে।

    • হুম… নাই কাজ তো খই ভাজ এর মত আরকি। এত শখ কইরা পিচ্চি মাইয়াটা একটা গান গাইলো, আর তারে নিরুতসাহের সাগরে ভাসাইয়া দিল 🙁 বেচারী রেবেকা 😛

  3. আহারে…. এই পিচ্চি মেয়েটাকে এভাবে পঁচানি দিলেন?! 😛 যাই হোক… percentage হিসেবে কিন্তু ডিজলাইকের পরিমাণ কিন্তু খুব একটা বেশি না!! 😀

  4. মাঝ ঠেকে রেবেকা আপার নাম হয়ে গেলো…সবাই তারে চিনে গেল 😆

  5. :mrgreen: খ্যাত হওয়ার দুইটি কৌশল। হয় খুব ই ভাল কিছু কর। অথবা খুব ই খারাপ কিছু কর ………।

  6. When the Lehigh River Sojourn drew to a close after paddling into Easton’s Hugh Moore Park earlier this month, it signaled not only the end of the amazing trip down the Lehigh River, but also the presentation of the 2009 Friend of the River Awards by the Wildlands Conservancy.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.