গুগলের স্মার্টফোন 'পিক্সেল'
অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনের বাজারে গুণগতমানের ফোনের রীতিমতো উদাহরণ হয়ে উঠেছে গুগলের পিক্সেল ফ্ল্যাগশিপ।বিস্ময়কর কারুকাজ ঘটেছে পিক্সেলে।
এর পারফর্মেন্স সিল্কের মতো মসৃণ।ক্যামেরায় তোলা ছবি অবাক করে দেবে যেকোনো মানুষকে।আর এর ভার্চুয়াল অ্যাসিস্টেন্ট তো এই মুহূর্তে পৃথিবীর সেরাদের একটি।সবাই ফোনটিকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন।কিন্তু এর একটি বিষয় নিয়েই অভিযোগ সবার।তা হলো, এর দাম সবার নাগালের ভেতরে নয়।
নাইন টু ফাইভ গুগল তাদের এক রিপোর্টে জানায়, বড় আকারের ‘জি’ লেখা স্মার্টফোন সত্যিকার অর্থেই মানুষের মন কেড়েছে।কিন্তু এর দাম আসলেই বেশি। তাই ফোনটিকে সব মানুষের হাতে পৌঁছে দিতে চাইছে গুগল।তাই পিক্সেলের সহনীয় বাজেটের একটি মডেল আনতে চাইছে গুগল।এর মাধ্যমে পিক্সেলের বাজার বিস্তৃত করা হবে।
নতুন কম বাজেটের ফোনটি আসার পর আবার হাই-এন্ড ফোনের দাম একলাফে ৫০ ডলার বাড়তে পারে।
অন্যান্য দিকেও নজর দিয়েছে গুগল।তারা মানসম্পন্ন ক্যামেরা নিয়ে আরো কাজ করবে।এই সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট কোয়ালকম এবং ইন্টেলের মতো নির্মাতার বানানো চিপসেট নিয়েও পরীক্ষা চালাচ্ছে।পিক্সেলের চিপসেটের মানও নিশ্চিত করতে চায় তারা।
কম বাজেটের পিক্সেল ফোনের ক্যামেরা বিশাল মেগাপিক্সেলের না হলেও এর বাড়তি ফিচার মিলবে।আবার নতুন একটি ফ্ল্যাগশিপ আনবে তারা।এটা হবে পানি প্রতিরোধী।প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, তাদের পিক্সেলেই এই প্রযুক্তি ব্যবহার করা দরকার ছিল।কাজেই পরের প্রজন্মের পিক্সেল সব ধরনের অভিযোগ মিটিয়েই বাজারে আসছে।
কম বাজেটের ফোনটির নাম হবে পিক্সেল ২বি।এটি কিছুটা কম শক্তির স্পেসিফিকেশন নিয়েই আসবে।উচ্চমানের পিক্সেল আসার পরই এটা আসতে পারে।
comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.