একটি গল্প দিয়ে শুরু করছি আজকের গেম প্রিভিউ টি। আল-কায়দা নামের জঙ্গি সংগঠন টি (আমি এখানে শুধুই একটি গল্প বলছি, আল- কায়দা ভালো, নাকি খারাপ দয়া করে সেই প্রসঙ্গ টি কষ্ট করে ভুলে যান) খোদ আমেরিকার বুকে এক বিশাল ক্ষত তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে, সেখানে যদি সারা পৃথিবীর টেররিস্ট গ্রুপ গুলোর প্রধান রা মিলে এক বিশাল ষড়যন্ত্র করে যা আমেরিকা এবং আমেরিকার বিভিন্ন স্থাপনা লক্ষ্য করে, তাহলে অবস্থাটা কি হবে ?

সারা পৃথিবীর টেররিস্ট গ্রুপ গুলোর প্রধান রা মিলে এক বিশাল ষড়যন্ত্র করেছে যার নাম তারা দিয়েছে ব্ল্যাকলিস্ট। ব্ল্যাকলিস্ট হচ্ছে, এমন এক হামলা যেখানে, যা হবে, এখন পর্যন্ত করা যেকোন টেররিস্ট আক্রমনের থেকেও মারাত্মক…… আর সেই আক্রমণ কে প্রতিহত করার জন্য সৃষ্টি হল ফোর্থ ইশেলন ইউনিট (Fourth Echelon unit)এর। এটি এমন একটি ইউনিট, যাতে কয়েকজন অভিজ্ঞ যোদ্ধা আছে, যাদের কোন ধরনের আইন স্পর্শ করতে পারবে না। কোন আইনের কাছে তাদের কে জবাবদিহি করতে হবে না। তাদের সকল কাজের রিপোর্ট শুধু মাত্র প্রেসিডেন্ট এর কাছে দিবে। আর এদের লিডার হিসেবে থাকছে স্যাম ফিশার।

স্যাম ফিশার এর সংক্ষিপ্ত পরিচয়ঃ
লুটেনেন্ট কমান্ডার স্যামুয়ের ফিশার। ন্যাশনাল সিকিউরিটি এজেন্সি ‘র একটি গোপনীয় শাখা থার্ড ইশেলন এর প্রাক্তন সদস্য। উচ্চতায় ১৭৭ সেমি. ৭৮ কেজি ওজনের লোকটি থার্ড ইশেলন এর স্প্লিন্টার সেল (Splinter Cell) প্রোগ্রাম এর প্রথম নিয়োগ প্রাপ্ত যোদ্ধা।

আমার ধারনা আপনারা ধরে ফেলেছেন আমি কোন গেমটি নিয়ে কথা বলতে যাচ্ছি। টম ক্ল্যান্সি’র স্প্লিন্টার সেলঃ ব্ল্যাকলিস্ট। স্প্লিন্টার সেল সিরিজের ষষ্ট এই গেমটি ডেভেলপ করেছে, ইউবিআই সফট টরেন্টো এবং পাবলিশ করেছে ইউবিআই সফট।

কাহিনীঃ

স্প্লিন্টার সেলঃ কনভিকশন গেমটির সূত্র ধরেই স্প্লিন্টার সেলঃ ব্ল্যাকলিস্ট গেমটির শুরু। এখানে দেখা যাবে, স্প্লিন্টার সেলঃ কনভিকশন এর কারনে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট, থার্ড ইশেলন কে বন্ধ করে দেয় এবং নতুন একটি এজেন্সি খুলেন, যার নাম, ফোর্থ ইশেলন। এক দল এলিট যোদ্ধা দের কে নিয়ে আসা হয় বিভিন্ন এজেন্সি থেকে, যাদের কাজ প্রধানত, খোদ প্রেসিডেন্ট এর কাছ থেকে পাওয়া বিভিন্ন বিচ্ছিন্ন এলাকায় একক ভাবে মিশন পরিচালনা করা, এবং আগেই বলা হয়েছে এদের কমান্ডার হিসেবে থাকছে, স্যাম ফিশার।

গেমের কাহিনী’র শুরু তে দেখা যাবে, ফোর্থ ইশেলন, তাদের মাত্রই বন্ধ হয়ে যাওয়া থার্ড ইশেলন এর সকল এক্টিভিটি গুলোকে শাট-ডাউন এ ব্যস্ত আর ঠিক সেই সময়, বারো জন জঙ্গি নেতা মিলে, আমেরিকার বুকে এক বিশাল ক্ষত চিহ্ন আঁকার লক্ষে “দ্যা ব্ল্যাকলিস্ট” অপারেশন টি শুরু করে। অপারেশন “দ্যা ব্ল্যাকলিস্ট” এর প্রধান লক্ষ্য থাকে, আমেরিকার বুকে, এবং পৃথিবীর অন্যান্য দেশে যে সমস্ত আমেরিকান স্থাপনা এবং সম্পদ আছে, ঠিক সেগুলো। ফিশার এবং তার সঙ্গিদের প্রধান লক্ষ্য থাকবে, এই জঙ্গিদের খুজে বের করা এবং যেকোন উপায়ে এই জঙ্গিদের প্ল্যান কে নস্যাৎ করে দেয়া।

গেমটিতে ফিশার কে সাহায্য করার জন্য বেশ কিছু আধুনিক যন্ত্রপাতি দেখা যাবে। যেমন, ত্রাই রোটর ড্রোন। যা শত্রু সীমানায় সবার অগচরে ঢুকে, গুরুত্বপূর্ন ইন্টেল নিয়ে আস্তে পারে, কোন টার্গেট কে রিমোটলি মার্ক করতে পারে এবং, শত্রু সীমানায় ফ্রেগ গ্রেনেড বিষ্ফোরন করতে পারে। এছাড়াও স্টিকি শকার এবং কারামবিট তো থাকছেই।

এতো গেল যন্ত্রপাতির কথা। আর মানুষ জনের মধ্যে থাকছে; টেকনিক্যাল অপারেশনস ম্যানেজার অ্যানা গ্রিম। অতিরিক্ত ফায়ার পাওয়ার এর জন্য, সিআইএ ‘র অপারেটিভ, ইসাক ব্রিগস, হ্যাকার কোল রাউন্ডস।

গেম প্লেঃ

মজার বিষয় হচ্ছে, প্রত্যেকে ( মানে সমস্ত গেম ডেভেলপার রা) নতুন কিছু যুক্ত করার চেষ্টা করে যাচ্ছে, যেমন ধরুন, ব্ল্যাক অপস ২ এর স্ট্রাইক ফোর্স মিশন এর ধারনা টি, যেখানে আপনি গেমের কাহিনী বদলে দিতে পারবেন। আবার ধরা যাক, ঘোস্ট রিকনঃ ফিউচার সোলজার, যেখানে আপনাকে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়েছে, অত্যাধুনিক কিছু গেজেটের সাথে। আমাদের এই স্প্লিন্টার সেলঃ ব্ল্যাকলিস্ট গেমটিও এর বিপরিত কিছু নয়। প্রথমবারের মতন, স্প্লিন্টার সেল সিরিজে পরিচয় করিয়ে দেয়া হচ্ছে “কিলিং ইন মোশান” নামের একটি ফিচার। যেখানে, স্যাম ফিশার তার টার্গেট গুলোকে, আগে থেকে চিহ্নিত করে রেখে চলার পথে গুলি করতে করতে এগুবে (দয়া করে গেমপ্লে টি দেখলেই বুঝে যাবেন।)।

আবার আপনি যদি, Xbox এর Kinect ব্যবহার কারি হন, তবে আপনি যে কোন ধরনের শব্দ করেই আপনার শত্রুদের মোনযোগ আকর্ষণ করতে পারবেন।

স্যাম ফিশার , এবং তার গিয়ারঃ

(এখানে শুধু মাত্র বলা হবে, স্যাম ফিশারের সাথে যা যা থাকবে। সারা গেম এ স্যাম ফিশার আরো অনেক কিছুই ব্যবহার করতে পারে)
বরাবরের মতন স্যাম ফিশার এবং তার ব্যবহৃত সামগ্রীর উপর সারা পৃথিবীর গেমার রা অধির আগ্রহে তাকিয়ে ছিল। এবং ইউ বি আই সফট, গেমারদের মোটেও হতাশ করে নি। আসুন দেখে নেই স্যাম ফিশার এই গেমে কি নিয়ে আসবে;

স্যাম ফিশারঃ ফোর্থ ইশেলন এর লিডার। তাকে শুধু মাত্র প্রেসিডেন্ট এর কাছে জবাব দিতে হয়। বরারবরের মতন এবারো তার পরনে থাকছে, কেভলার অপারেশনাল স্যুট।

কারামবিট (KARAMBIT)ঃ একধরনের বাঁকানো ছুরি। ডাক নাম, “দ্যা টাইগারস ক্ল”। এর ডিজাইন, একে করে তুলেছে, দ্রুত গতি সম্পন্ন, বহুমুখী ব্যবহার এবং ভয়ংকর।

ফাইভ-সেভেনঃ একটি অত্যাধুনিক সেমি অটোমেটিক পিস্তল, যা স্যাম ফিশারের নিজস্ব স্পেসিফিকেশন এ মডিফাই করা, যার একটি হচ্ছে, ইন্ট্রিগেটেড সাপ্রেসর।

এম ৪১৬ ঃ একটি অত্যাধুনিক অ্যাসাল্ট রাইফেল। ৮৫০ রাউন্ড প্রতি মিনিটে ছুঁড়তে পারা এই অ্যাসাল্ট রাইফেল টিকে গেমে দেখা যাবে।

অপস্যাটঃ সম্পূর্ন নাম; অপারেশনাল স্যাটেলাইট আপলিঙ্ক। স্প্লিন্টার সেল এজেন্ট দের কমিউনিকেশনের প্রধান মাধ্যম।

সোনার গগলসঃ অসাধারন একটি আইটেম, এবং এটি হচ্ছে, স্প্লিন্টার সেল গেমের সিগনেচার। গগলস টির দেয়াল ভেদ করে দেখার ক্ষমতা আছে। এছাড়া নাইট ভিশন এবং আরো কিছু কার্য ক্ষমতা আছে এর।

একনজরেঃ
ডেভেলপারঃ ইউ বি আই সফট টরেন্টো
পাবলিশারঃ ইউ বি আই সফট
লেখকঃ রিচার্ড ডান্সকি
সিরিজঃ টম ক্ল্যান্সি’র স্প্লিন্টার সেল
ইঞ্জিনঃ এল ই এ ডি ইঞ্জিন (মডিফাইড আনরিয়েল ইঞ্জিন ২.৫)
প্লাটফর্মঃ Microsoft Windows, PlayStation 3, Xbox 360, Wii U
বের হবার তারিখঃ ২৯ শে মার্চ ২০১৩
ধরনঃ অ্যাকশান অ্যাডভেঞ্চার, স্টেলথ
স্টাইলঃ সিঙ্গেল প্লেয়ার, মাল্টি প্লেয়ার কো অপ।

আমার কিছু কথাঃ
আমি নিজের কিছু কথা বলতে চাচ্ছি এই স্প্লিন্টার সেল গেম নিয়ে। আমার গেমিং জীবনের প্রথমে আমি সব সময় বিশ্বাস করতাম, গেম হবে এমন; অস্ত্র নিয়ে নামব, গুলি করব, লেভেল শেষ করব, গেম ওভার হবে। কিন্তু, স্প্লিন্টার সেল সিরিজ টি আমাকে শিখিয়েছে, কি করে প্রতিপক্ষকে না মেরেও গেম শেষ করা যায়। আমার কাছে জানতে চাওয়া হলে আমি বলব, স্প্লিন্টার সেল এর গেম গুলো হচ্ছে, আমার সবচাইতে প্রিয় সিরিজ। আমার মতে স্প্লিন্টার সেল গেম গুলোর কাছে, আস্যাসিনস ক্রীড , কোন ধরনের পাত্তাও পায়না। ... হা হা হা ... এটা একান্তই আমার মতামত।

ট্রেইলারঃ

গেমপ্লেঃ

গিয়ারঃ

comments

15 কমেন্টস

  1. অনেক দিন পর স্প্লিন্টার সেল এর কথা মনে করিয়ে দিলেন 😀 স্প্লিন্টার সেল কনভিকশনটা ডাউনলোড দিলাম। ব্ল্যাকলিস্ট আসতেতো অনেক দেরী।

  2. আরে ইমতিয়াজ ভাই নাকি ??? আছেন কেমন ??? মন-দিল সব ওকে ??? স্প্লিন্টার সেল, সব সময়ই জটিল ধরনের হয় … কনভিকশন টা খেলেন … সুপার 😀

  3. স্প্লিন্টার সেলের আগের ভার্সন কি কনভিকশন? তাহলে তো আপনার কথা অনুযায়ী নামাতে হয়!! 😀 😀

  4. আমার পিসি কনফিগারেশন হচ্ছে- প্রসেসর : ইন্টেল কোর টু ডুয়ো ই৪৫০০, ২.২০ গিগাহার্টজ, মাদারবোর্ড : ইন্টেল ডি কিউ ৯৬৫ জিএফ, র্যাটম : DDR2 ১.৫ গিগাবাইট, হার্ডডিস্ক : স্যামসাং ১৬০ গিগাবাইট, আমি উইন্ডোজ সেভেন আল্টিমেট ৩২ বিট ব্যবহার করি ।
    আমি ১ জিবি এর ১টি গ্রাফিক্স কার্ড কিনতে চাই। ভালো মানের গেমস খেলার জন্য কোন কার্ড কেনা উচিত? সাথে র্যাটম কি পরিমাণ বাড়ানো দরকার ?
    দয়া করে জানালে উপকৃত হবো ।

  5. Vertkin handed over an offer with the Kip Tiernan Sociable Justice Fellowship, ppc by just Rosie Place in live up too from the organizer so they can account designs that provide lousy and then misplaced and even triumphed. assortment committee accepted Present in Interpretation possibility to change periodic lower income through giving women of all ages a well paying up industry, along with rewarded them $40,500 for launch capital to prepare and do the plan.
    Victoria Beckham Crepe Dress White

  6. hey there and thanks in your information ? I’ve certainly picked up something new from right here. I did on the other hand experience some technical points using this web site, as I experienced to reload the website many occasions prior to I may just get it to load properly. I had been considering if your hosting is OK? No longer that I am complaining, however slow loading instances times will sometimes have an effect on your placement in google and could injury your high quality score if advertising and marketing with Adwords. Well I’m including this RSS to my e-mail and could look out for a lot more of your respective intriguing content. Ensure that you replace this once more very soon..

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.