উইন্ডোজ ৭ মাইক্রোসফটের ইতিহাসে নিঃসন্দেহে একটি ব্যাপক উন্নতি বা স্টেপফরওয়ার্ড। যারা ওপেন সোর্স ভালোবাসেন তারাও কোনো কোনো ক্ষেত্রে স্বীকার করতে বাধ্য হন যে উইন্ডোজ সেভেন সত্যিই চমৎকার একটি অপারেটিং সিস্টেম। উইন্ডোজের চিরাচরিত কিছু সমস্যা উইন্ডোজ সেভেনে থেকে গেলেও সবদিক মিলিয়ে সত্যিই উন্নতি সাধন করেছে মাইক্রোসফট। এজন্যই উইন্ডোজ ৮-এর দিকে অনেকেই একবুক আশা নিয়ে তাকিয়ে আছেন।

সাধারণত উইন্ডোজ দুই থেকে চার বছর পরপর তাদের অপারেটিং সিস্টেমের নতুন মেজর রিলিজ বের করে। আমরা অনেক আগেই তথ্য পেয়েছি যে মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ৮ এর নির্মাণকাজ প্রায় শেষ। কেবল উইন্ডোজ সেভেন থেকে আরো দু’পয়সা কামিয়ে নেয়ার ধান্ধায় মাইক্রোসফট এখনই তা রিলিজ করছে না। ধারণা করা হচ্ছে, ২০১২ সালের আগে বাজারে আসছে না সর্বাধিক জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেমটির নতুন সংস্করণ। কিন্তু তাতে কী! এই সংস্করণ নিয়ে নানা চমকপ্রদ তথ্য কিছুদিন পরপরই ফাঁস হচ্ছে বিভিন্ন সাইটে।

সম্প্রতি উইদিনউইন্ডোজ নামের একটি সাইটে বেশকিছু উইন্ডোজ এইটের স্ক্রিনশট ফাঁস হয়েছে যা দেখে ধারণা করা হচ্ছে উইন্ডোজ এক্সপ্লোরার (যা দিয়ে হার্ড ড্রাইভের ফাইল ব্রাউজ করা হয়; অন্য কথা মাই কম্পিউটার) আরো ব্যবহারোপযোগী ও সহজ করতে রিবন যোগ করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই যারা মাইক্রোসফট অফিস স্যুটের ২০০৭ বা এর পরের কোনো সংস্করণ দেখেছেন, তারা অবশ্যই জানেন রিবন কী জিনিস। অনেকে এটি পছন্দ করেন, অনেকে করেন না। তবে আপাতঃদৃষ্টিতে মনে হচ্ছে মাইক্রোসফটের রিবন বেশ পছন্দ। আর হয়তো তাই এটি এখন আর কোনো সফটওয়্যার নয়, বরং খোদ উইন্ডোজেরই একটি অংশ হয়ে দাঁড়াচ্ছে।

নিচের ছবিগুলো দেখে নিতে পারেন উইন্ডোজ এইটের রিবন সম্পর্কে ধারণা নিতে চাইলে।

win8_m23_ribbon_menu1রিবন মেনু

win8_ribbon_031

win8_m23_ribbons3সাধারণ অবস্থায় রিবন

লগইন স্ক্রিন

এখনো নিশ্চিতভাবে জানা না গেলেও ফাঁস হওয়া তথ্যাদির মধ্যে রয়েছে উইন্ডোজ লগইন স্ক্রিন। জানা গেছে, লগইন স্ক্রিনে তেমন একটা পরিবর্তন করা সম্ভব হবে না যদি এটিই চূড়ান্ত লগইন স্ক্রিন হিসেবে ঠিক করা হয়। কেবল ব্যাকগ্রাউন্ড ছবি, সময় বা তারিখের ফরম্যাট ইত্যাদি পরিবর্তন করা যাবে।

LogonUI

এর আগে জানা গেছে, উইন্ডোজ এইটে থাকবে অটোমেটেড লগইন সুবিধা। এর আওতায় ব্যবহারকারী কম্পিউটারের সামনে বসামাত্র ওয়েবক্যাম তার চেহারা চিনে নিয়ে তাকে তার অ্যাকাউন্টে লগইন করে নেবে। (অবশ্য আমি এখনই আমার ল্যাপটপে এই সুবিধা উপভোগ করছি 😉 ) তবে আসলে কী কী সুবিধা থাকছে প্রত্যাশিত উইন্ডোজ এইটে, তা বেটা সংস্করণ বের হওয়ার আগে নিশ্চিত করে কেউই বলতে পারছে না।

উইন্ডোজ এইটে আপনার প্রত্যাশা কী কী?

comments

19 কমেন্টস

    • রিড মোর ইনসার্ট করে দিলেই ঠিক হয়ে যাওয়া উচিৎ। আসলে এটা অনেক কিছুর উপরে ডিপেন্ড করে। থিম ফাইলে (ইনডেক্স ডট পিএইচপি) কীভাবে সেট করা আছে, ফাংশনস ডট পিইএচপি ফাইলে কী রুল আছে ইত্যাদি।

  1. আশ্চর্য হলেও সত্য লেখাটি পুরোটাই প্রথম পাতায় দেখাচ্ছ। উইন্ডোজ ৮ নিয়ে মাইক্রোসফটের অনেক পরিকল্পনা। এর বেশ কিছু রিসোর্স আমি আমার ব্লগে দিয়েছি। দেখে আসতে পারেন- মাইক্রোসফটের ফাঁসকৃত স্ক্রিনশটঃ উইন্ডোজ ৮ এ রিবন ইউজার ইন্টারফেস ব্যবহারের সম্ভাবনা
    ধন্যবাদ…

    • আপনার সাইটটি সুন্দর হয়েছে। এমনিতেই AllTuts ওয়ার্ডপ্রেস থিমটা আমার পছন্দ। বাংলায় কাস্টোমাইজেশনও সুন্দর হয়েছে।

  2. পোস্ট টা শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ। “এর আওতায় ব্যবহারকারী কম্পিউটারের সামনে বসামাত্র ওয়েবক্যাম তার চেহারা চিনে নিয়ে তাকে তার অ্যাকাউন্টে লগইন করে নেবে। (অবশ্য আমি এখনই আমার ল্যাপটপে এই সুবিধা উপভোগ করছি)”………. এটা কিভাবে করব ভাই?? যদি এই নিয়া কিছু বলেন……………………প্লিজ…………………

    • এটা আসলে আমার ল্যাপটপের বিল্টইন সুবিধা। একে ফেস রিকগনিশন লগইন বলে। যাদের ল্যাপটপে এটা নেই তারাও হয়তো সেট করতে পারেন, তবে কীভাবে তা আমার জানা নেই। 🙁

      গুগলে সার্চ করলে হয়তো পেতে পারেন।

        • কষ্ট পাইয়েন না ভাই। একটু খোঁজাখুঁজি করেন পেয়ে যাবেন আশা করি। ওয়েবক্যাম থাকলে আর ফেস রিকগনিশন থাকলে ফেস রিকগনিশন লগইন-এর জন্য সফটওয়্যার থাকার কথা।

        • ফেস রিকগনিশনের জন্য আসুসের আলাদা সফটওয়্যার রয়েছে। ল্যাপটপটা আসুসের হলে আর ল্যাপটপে ওয়েবক্যাম থাকলে যেকোন আসুস ল্যাপটপেই এটা করা যায়। 😀

  3. ভাই ফেস রিকগনিশন এর জন্য ফ্রী সফটওয়্যার থাকলে প্লীজ লিংক দেন সজিব ভাই………………

  4. হুম এতদিন ব্যবহার করছিলাম কিন্তু আজ আবার এক্সপি তে গোয়িং মরলাম

  5. You said you are using face detecting software in your laptop to log in.May i know how i can use it or where to download it from.i am using win7 and 64bit machine.Dell inspiron n5010

  6. এই পোষ্টটা পাই বুঝলাম আমার উইন্ডোজ ৮ টা নকল:oops:

  7. প্রেরক :
    মাহফুজ, মোহাম্মাদপুর, ঢাকা । ই-মেইল # mahfuz08@yahoo.com

    ব্লগারদের কাছে কিছু প্রশ্নের উত্তর চাই।

    ১/ উইন্ডোজ # ৭ উপরের আপগ্রেড কনফিগারেশনে চালানো সম্ভব কিনা ?
    ৩২ বিট এবং ৬৪ বিট – এর মধ্যে কোনটি উপরের আপগ্রেড কনফিগারেশনে চালানো সম্ভব ?
    উইন্ডোজ # ৭ – এর মধ্যে কি কি ভাগ আছে এবং কোনটি ভালো ?
    ১ বা ২ টেরাবাইট হার্ডডিস্কের পার্টিশন কি পরিমাণে ভাগ করা হবে ?
    আমি যদি অন্যান্ন সফ্টওয়ার প্রোগ্রাম ফাইলের ডিরেক্টরি এবং মাই ডকুমেন্ট সি এর পরিবর্তে ডি ড্রাইভে
    ইন্সটল করতে চাই তবে উইন্ডোজ # ৭ – এ প্রোগ্রাম ফাইলের পাথ (রুট ডিরেক্টরি) কি ভাবে পরিবর্তন
    করতে হয় ?
    বড় হার্ডডিস্কের ব্যবহারের ফলে উইন্ডোজ # ৭ বা এক্স-পিতে কোন সমস্যা হয় কিনা ?

    ২/ আমার কম্পিউটারে ইন্টারর্নাল সাটা হার্ডডিস্ক আছে যা ৮০ গিগা. । আমি একে এক্সট্রার্নাল হার্ডডিস্কে
    রুপান্তর করতে চাই।
    ‌ইন্টারর্নাল সাটা হার্ডডিস্ক কে এক্সট্রার্নাল হার্ডডিস্কে রুপান্তর করার সহজ উপায় কি ?
    ইন্টারর্নাল সাটা হার্ডডিস্ক কে ইউ.এস.বি এক্সট্রার্নাল হার্ডডিস্কে রুপান্তর করা যায় কি না এবং কি ভাবে?

    বি.দ্রু. : দয়া করে উত্তরটি অভ্র বা ইউনিকোডের মাধ্যমে বাংলায় এম.এস.ওয়ার্ড ফাইলে লিখে তা ই-মেইলে
    যুক্ত করে পাঠান ।

  8. প্রেরক :
    মাহফুজ, মোহাম্মাদপুর, ঢাকা । ই-মেইল # mahfuz08@yahoo.com

    আমার কম্পিউটার আপগ্রেড করব। তাই ব্লগারদের কাছে কিছু প্রশ্নের উত্তর চাই। আমি কম্পিউটারটি ২৪/০৭/২০০৬ ইং তারিখে কিনেছি। বর্তমানে কোন ওয়ারেন্টি নেই । তাই উল্লেখিত সব গুলো বিষয় আপগ্রেড হবে কিনা দ্রুত জানতে চাই। আমার বাসায় কোন টেকি লোক নেই। দয়া করে উত্তরটি অভ্র বা ইউনিকোডের মাধ্যমে বাংলায় এম.এস.ওয়ার্ড ফাইলে লিখে তা ই-মেইলে যুক্ত করে পাঠান ।

    পিসি কনফিগারেশন হচ্ছে :

    প্রসেসর :
    ইন্টেল পেন্টিয়াম ৪ , সি পি ইউ : ২.৬৬ গিগাহার্টজ।

    মাদারবোর্ড :
    মডেল নেম # জিএ – ৮❙৯১৫ এমডি – জিভি
    ইন্টেল # ৯১৫ জিভি / আই.সি.এইচ. # ৬
    পি ৪ সকেট ৭৭৫ / মাইক্রো এ.টি.এক্স
    গিগাবাইট এল. জি. এ. ৭৭৫, ইন্টেল পেন্টিয়াম ৪ ।
    ইন্টেল বায়স # ইন্টেল ৯১৫ জিভি ফর ৮❙৯১৫ এমডি – জিভি এফ ২।

    অপারেটিং সিস্টেম :
    উইন্ডোজ এক্স-পি প্রফেশনাল।

    মনিটর :
    ১৭ ইঞ্চি সিআরটি মনিটর ।
    র্যা ম :
    ডিডিআর -২ র্যা ম # ১ গিগাবাইট ।

    নিচের বিষয় গুলো আপগ্রেড হবে। কিন্তু প্রসেসর এবং মাদারবোর্ড বদল করা হবে না।

    ১/ আমি ডিডিআর -২ র্যা ম ২ গিগাবাইট কিনব। মাদারবোর্ডে ২ গিগাবাইট পর্যন্ত ব্যবহার করা যায়
    এবং ২টি র্যাামের স্লট আছে ।
    আমি কি ডিডিআর -২ র্যা ম ২ গিগাবাইটের ১টা কিনব, নাকি ১ গিগাবাইটের ২টা কিনব ?
    যেহেতু ২টি র্যাামের স্লট আছে , তাই ২ টি নাকি ১ টি র্যাখম , কোনটি বেশী কর্যকর হবে ?
    র্যা ম কোনটি কিনবো , তা কি ভাবে নির্ধারণ করব ?
    কোন কোম্পানি ভালো এবং এর দাম কত ?

    ২/ আমি ১ অথবা ২ টেরাবাইট সাটা হার্ডডিস্ক কিনব।
    উপরের কনফিগারেশনে ১ অথবা ২ টেরাবাইট সাটা হার্ডডিস্ক ব্যবহার করা যাবে কিনা ?
    কোন কোম্পানি ভালো এবং এর দাম কত ?

    ৩/ উইন্ডোজ # ৭ উপরের আপগ্রেড কনফিগারেশনে চালানো সম্ভব কিনা ?
    ৩২ বিট এবং ৬৪ বিট – এর মধ্যে কোনটি উপরের আপগ্রেড কনফিগারেশনে চালানো সম্ভব ?
    উইন্ডোজ # ৭ – এর মধ্যে কি কি ভাগ আছে এবং কোনটি ভালো ?
    ১ বা ২ টেরাবাইট হার্ডডিস্কের পার্টিশন কি পরিমাণে ভাগ করা হবে ?
    আমি যদি অন্যান্ন সফ্টওয়ার প্রোগ্রাম ফাইলের ডিরেক্টরি এবং মাই ডকুমেন্ট সি এর পরিবর্তে ডি ড্রাইভে
    ইন্সটল করতে চাই তবে উইন্ডোজ # ৭ – এ প্রোগ্রাম ফাইলের পাথ (রুট ডিরেক্টরি) কি ভাবে পরিবর্তন
    করতে হয় ?
    বড় হার্ডডিস্কের ব্যবহারের ফলে উইন্ডোজ # ৭ বা এক্স-পিতে কোন সমস্যা হয় কিনা ?

    ৪/ সাটা ডিভিডি রাইটার কিনব ।
    সাটা ডিভিডি রাইটার পাওয়া যায় কিনা এবং কোথায় ?
    কোন কোম্পানি ভালো এবং এর দাম কত ?

    ৫/ গ্রাফিক্স কার্ড কিনব , যাতে ভারি গেম খেলা যায় ।
    আমার মাদারবোর্ড এবং উপরের আপগ্রেড কনফিগারেশনে কোন ধরনের এবং কত শক্তিশালী গ্রাফিক্স
    কার্ড কিনব ?
    কোন কোম্পানি ভালো এবং এর দাম কত ?

    ৬/ ইন্টারনাল ডায়াল-আপ মডেম কিনব, যাতে ইন্টারনেট, ফোন এবং ফ্যাক্স ব্যবহার করা যায় ।
    কোন কোম্পানি ভালো এবং এর দাম কত ?

    ৭/ ইন্টারনাল টিভি কার্ড কিনব ।
    ডিস লাইন ছাড়া ইন্টারনাল টিভি কার্ডের মধ্যমে কি ভাবে টিভি দেখা যায় ?
    কোন কোম্পানি ভালো এবং এর দাম কত ?

    ৮/ পাওয়ার সাপ্লাই ইউনিট কিনব , যাতে উপরের কনফিগারেশনে কোন ধরনের সমস্যা না হয় ।
    কত ওয়াট পিএসইউ কিনতে হবে ?
    কোন ডিভাইস কি পরিমাণ কারেন্ট টানবে ?
    অধিক পাওয়ারের পিএসইউ কিনলে আইপিএস এর ব্যাকআপ কমে যায় কিনা ?
    কোন কোম্পানি ভালো এবং এর দাম কত ?

    ৯/ আমি ট্রান্সসেন্ড জে এফ ৩০ পেন-ড্রাইভ ব্যাবহার করি, যা ৪ গিগাবাইট। এটা ৩/৪ বছর আগে কিনা
    হয়েছে, এটা উইন্ডোজ এক্স-পি সাপোর্ট করে।
    আমি এটা উইন্ডোজ # ৭ এর সাথে চালাতে পারব কিনা ?

    ১০/ আমার মাদারবোর্ডে কোন ধরণের এবং ক্ষমতা সম্পূর্ণ গ্রাফিক্স কার্ড বিল্টইন আছে , তা কি ভাবে বুঝব ?
    মাদারবোর্ডের কনফিগারেশন কি ভাবে লিখে পাঠাতে হয় ?

    ১১/ মাদারবোর্ডের ফিচারে দেখা যায় যে, চিপসেট , অনবোর্ড ল্যান, আইডিই কানেকশানস,অনবোর্ড সাটা –
    এ ( সাপোর্টেট অন দি উইন ২০০০ / এক্স-পি অপারেটিং সিস্টেমস ) লিখা আছে ।
    উইন্ডোজ # ৭ অপারেটিং সিস্টেম চালু করলে ব্রডব্যান্ড লাইন বা অন্য কোনো ইন্টারনেট লাইনে
    কোনো সমস্যা হবে কিনা ?
    চিপসেটের ক্ষেত্রে উইন্ডোজ # ৭ অপারেটিং সিস্টেম চালু করলে কি ধরনের সমস্যা হবে ?

    ১২/ উইন্ডোজ # ৭ এবং উইন্ডোজ এক্স-পি এর মধ্যে কোনটি কেন ব্যাবহার করা উচিত বা ভাল ?
    ৩২ বিট এবং ৬৪ বিট – এর মধ্যে কোনটি কেন সুবিধাজনক বা অসুবিধাজনক ?

    ১৩/ বর্তমান মাদারবোর্ডের পরিপ্রেক্ষিতে আমি যদি নতুন প্রসেসর কিনতে চাই, তবে ইন্টেলের কোন ধরনের
    এবং কি পরিমাণ শক্তিশালী প্রসেসর কিনা যাবে ?

    ১৪/ আমি কম্পিউটারটি ২৪/০৭/২০০৬ ইং তারিখে কিনেছি। বর্তমানে কোন ওয়ারেন্টি নেই।
    তাই উল্লেখিত সব গুলো বিষয় প্রসেসর এবং মাদারবোর্ড বদল না করে আপগ্রেড হবে কিনা ?

    ১৫/ ব্রাউজারে অভ্র কিবোর্ডে লিখতে গেলে যুক্ত অক্ষর হয় না ।
    যুক্ত অক্ষরের মাঝে ্‌ থাকে ।
    যেমন :
    শিক্ষা = শিক্‌ষা
    এর ফলে গুগল সার্চ ঠিক মত হয় না।
    এই সমস্যা থেকে মুক্তির উপায় কি ?

    ১৬/ ফায়ার ফক্স # ৪ – এর এড-অনস ইন্সটল করা যাচ্ছে না।
    কাজেই ব্যাকআপ এড-অনস পাওয়া গেলে তা ইন্সটল করা যেত।
    এটা কোথায় পওয়া যাবে ?

    ১৭/ আমার কম্পিউটারে ইন্টারর্নাল সাটা হার্ডডিস্ক আছে যা ৮০ গিগা. । আমি একে এক্সট্রার্নাল হার্ডডিস্কে
    রুপান্তর করতে চাই।
    ‌ইন্টারর্নাল সাটা হার্ডডিস্ক কে এক্সট্রার্নাল হার্ডডিস্কে রুপান্তর করার সহজ উপায় কি ?
    ইন্টারর্নাল সাটা হার্ডডিস্ক কে ইউ.এস.বি এক্সট্রার্নাল হার্ডডিস্কে রুপান্তর করা যায় কি না এবং কি ভাবে?

    ১৮/ আমার কম্পিউটারে ইসেট স্মার্ট সিকিউরিটি এন্টিভাইরাস আছে। আমার ইন্টারনেট কানেকসান আছে।

    বিভিন্ন পত্রিকায় দেখলাম ইন্টারনেট কানেকসান থাকলে এন্টিভাইরাসের পাশাপাশি ইন্টারনেট সিকিউরিটি
    এবং এন্টিম্যালওয়ার ইন্সটল থাকতে হবে।তার মানে উক্ত ৩ টি জিনিস কি একই সাথে ইন্সটল থাকতে হবে ?

    ইসেট স্মার্ট সিকিউরিটি এন্টিভাইরাসের পাশাপাশি আর কি কি সতর্কতা মূলক জিনিস ইন্সটল এক সাথে রাখা যাবে ?

    ফ্রি হিসাবে যে সব সতর্কতা মূলক জিনিস ইসেট স্মার্ট সিকিউরিটি এন্টিভাইরাসের পাশাপাশি একই সাথে
    রাখা যাবে সেগুলোর মধ্যে সব চেয়ে ভালো কোন গুলা ?

    যেমন নড ৩২ তেমন ভাল লিন্ক চেকারের নাম কি ?

    ভাল পি ডি এফ চেকার হিসেবে কি ব্যবহার করা যায় ?

    উপরের সব গুলা কি একই সাথে ব্যাবহার করা যায়, যেমন: ইসেট স্মার্ট সিকিউরিটি ও পান্ডা ভ্যাকসিন?

    ম্যালওয়ার কম্পিউটারে ঢুকে গেলে কি করে বুঝব এবং কি করব ?

    পেনড্রাইভে যদি অন্য কম্পিউটার থেকে আগে থেকেই ম্যালওয়ার autorun.inf ফাইল প্রবেশ করে তবে
    এবং তা ইতিমধ্যে আমার কম্পিউটারে ব্যবহার করা হয় তবে এখন কি করা যাবে ?

    ভাইরাস মুক্ত রাখার জন্য এডবি রিডারে স্ক্রিপ্টকে নিষ্ক্রিয় করার জন্য পিডিএফ এডিট অফসনে গিয়ে
    Enable menu items JavaScript execution privileges – টিক চিন্হ দিয়ে ওকে করতে হবে কিনা ?

    দয়া করে উল্লেখিত সব গুলো বিষয় প্রশ্নের
    উত্তর দিলে বাধিত হব ।

    বি.দ্রু. : দয়া করে উত্তরটি অভ্র বা ইউনিকোডের মাধ্যমে বাংলায় এম.এস.ওয়ার্ড ফাইলে লিখে তা ই-মেইলে
    যুক্ত করে পাঠান ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.