বিজ্ঞানীর হাতে মানুষের মস্তিষ্কের দুটি অংশ ছবি সূত্রঃ ইন্টারনেট

মানুষের মস্তিষ্ক দুইভাগে বিভক্ত এবং রুপান্তরটিও ঠিক এমনভাবেই হয়ে আসছে। বিজ্ঞানীরা বলছেন যে এই দুইভাগে বিভক্ত হওয়াটিও আমাদের জন্য বিশেষ কিছু সুবিধা নিয়ে আসতে পারে।
বিজ্ঞানীরা এর সাথে এও বলছেন যে, আমাদের মস্তিষ্কের দুটি অংশের কাজ দুই ধরণের। যেটিকে আমরা লেফট হেমিস্ফেয়ার বলে জানি, তা আমাদের ভাষা এবং কথা বলার ক্ষেত্রে সাহায্য করে থাকে। আমাদের আবেগ এবং মুখের ভঙ্গির জন্য সাহায্য করে থাকে রাইট বা ডান হেমিস্ফেয়ার। “নিউরন” নামক একটি জার্নালে এটি প্রকাশিত হয়েছে যে আমাদের মস্তিষ্কের দুটি অংশের বিভক্ত হওয়া কেন আমাদের জন্য আশীর্বাদস্বরুপ।

দুইভাগে বিভক্ত মানুষের মস্তিষ্ক  ছবি সূত্রঃ ইন্টারনেট
দুইভাগে বিভক্ত মানুষের মস্তিষ্ক
ছবি সূত্রঃ ইন্টারনেট

এই আশীর্বাদের একটি অন্যতম সুবিধা হচ্ছে, আমরা যদি বিশেষ কোন কাজ করতে চাই, তাহলে কাজগুলো বণ্টন করে নেয়া এবং তা কিভাবে সুচারুভাবে সম্পন্ন করা যায়, তা নির্ণয় করা মস্তিষ্কের এই দুইই অংশের কাজ।
বিজ্ঞানীরা বলছেন, মস্তিষ্কের একটি অংশ যদি আমাদের কঠিন কঠিন কাজ করবার দায়িত্ব নেয়, তবে অপর অংশ দায়িত্ব নেয় ভাষা, কথা বলা এবং আবেগিক নানা ধরণের কাজকর্মের বন্টনের ব্যাপারে। সমভাবে কর্মবণ্টনে যদি আমরা বিশ্বাস করে থাকি, তাহলে দেখা যায় যে মস্তিষ্কের এই কর্মবিভাজনের চাইতে চমৎকার কিছু আর হতেই পারে না।

পড়াশোনা, মেধাবিকাশ, কোন কিছু নিয়ে জটিল্ভাবে চিন্তাভাবনা করা, প্রেক্ষাপট বিশ্লেষণ ইত্যাদি কাজ করবার ক্ষেত্রে আমাদের মস্তিষ্কের দুটি অংশ নানাভাবে সাহায্য করে থাকে। অনেকে এই প্রশ্ন করে থাকেন, মস্তিষ্কের দুটি অংশের আসলে কি দরকার? তবে বিজ্ঞানীরা বলছেন দুটি অংশের ফাংশনের কাজ বিভিন্ন ধরণের। তাই, সূচারুভাবে সম্পন্ন করবার জন্য মস্তিষ্কের দুটি অংশই প্রয়োজন।

সূত্রঃ লাইভ সাইন্স

comments

কোন কমেন্ট নেই

LEAVE A REPLY

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.