বিসমিল্লাহির রহমানীর রাহীম। আশা করা সবাই ভালো আছেন। আজকে আমি আপনাদের সাথে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় সম্পর্কে আলোচনা করবো। আমরা সবাই জানি যে ডায়াবেটিস হলো বাংলাদেশের একটি জাতীয় রোগ। বাংলাদেশের প্রায় অধিকাংশ মানুষই এই ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত। মুলতঃ ডায়াবেটিস হলো একধরণের বহুমুত্র রোগ। ডায়াবেটিসকে সারানোর মতো বর্তমানে এখনো কোন ঔষুধ আবিস্কার হয়নি। এটিকে শুধুমাত্র নিয়ন্ত্রন করা যায়।
তবে সাম্প্রতিক, বিজ্ঞানীরা গবেষণা করে দেখেছেন, যারা কফি বেশি পান করেন তাদের ডায়াবেটিসের ঝুঁকি অনেক কম। দৈনিক যারা ২ থেকে ৩ কাপ কফি পান তাদেন ডায়াবেটিসের ঝুঁকি অনেক কম। সাম্প্রতি ওইউ স্বাস্থ্য সংস্থার গবেষকরা বলেছেন, বেশি কফি পান করলে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি তুলনামুলক ভাবে অনেক কমে যায়। তার কারণ হলো কফিতে অবস্থিত কলিনার্জিক এসিড গ্লুকোজের মাত্রা বৃদ্ধি প্রতিহত করে।

গবেষক জ্যাং ইং এর নেতৃত্বে এক দল গবেষক আট বছর গবেষণা করে দেখেছেন যে, যে ব্যক্তি দিনে ১২ কাপের বেশি কফি পান করে, তার ডায়াবেটিসের ঝুঁকি ৬৭ শতাংশ কম থাকে। আমেরিকান চিকিৎসা শাস্ত্রের সমিতি অনুসারে, ডায়াবেটিস এমন একটি রোগের যাতে উচ্চ রক্তচাপ ও চিনি রয়েছে। তাই তারা বলছে, প্রতিদিন এক ব্যক্তি যদি ১২ কাপ কফি পান করে তাহলে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি অনেক কম থাকে। গবেষক জ্যাং ইং-এর মতে, আমরা কফির ওপর বেশি নজর রেখেছিলাম। কারণ অনেক তরুন কফি পান করে। তাই কফি জনস্বাস্থ্যের ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমাতে অনেক সাহায্য করবে। যদিও এ গবেষণা কেবল আমেরিকা ও ভারতে চালানো হয়েছে।

জ্যাং ইং- এর এ গবেষণা ইতিমধ্যেই আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশ পেয়েছে। এ গবেষণা কাজ করা হয়েছিল জাতীয় হদরোগ ও ফুসফুস, রুক্ত সংস্থা এবং মেডস্টার গবেষণা সংস্থার সঙ্গে।

তাই বিজ্ঞানীরা পরামর্শ দিয়েছেন বেশি করে কফি পান করে নিজেকে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি থেকে মুক্ত থাকতে।

ধন্যবাদ,
মোঃ আব্দুর রহিম

আমার ওয়েব সাইটঃ www.itworldbd.tk

comments

9 কমেন্টস

  1. আমি চা পান করি না বল্লেই চলে তবে কফি ভালো পান করি ।
    আচ্ছা রহিম ভাই, কফিতে অল্প দুধ ও ১.৫চা. চিনি দিলে কফির কার্যক্ষমতা কি কমে যাবে?

    • কফির কার্যক্ষমতা কমে যাবে কিনা তা বলতে পারবো না। তবে যাদের ডায়াবেটিস আছে তাদের চিনি (মিষ্টি) থেকে দূরে থাকায় ভালো।

  2. চমৎকার একটা জিনিস আমার জানা খুব প্রয়োজন ছিন । শেয়ার করার জন্য আপনাকে……………. ধন্যবাদ ।আমি কফি বেশি পান করি………….

  3. এতদিন তো জানতাম যে কফি দিনে 2-3 কাপের বেশি পান করা ভাল না কারণ কফির কাফইন হার্ট অণ্ড ব্রেন উপর বিরূপ প্রোবাব ফেলে .তবে আমি চা এর বদলে কফি খাওয়াকেই বেশি prefer করি.কারণ কফির taste চার তুলনায় ভাল । 😀

  4. যা দিনকাল পরেছে, ডায়াবেটিস এখন কমোন রোগ হয়েগেছে। কফি পান করে নিজেকে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি থেকে মুক্ত রাখার প্রচেস্টা করতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.