বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম। বিজ্ঞান প্রযুক্তিতে আমার প্রথম লেখা এটা। আশা করি ভাল লাগবে সবার। কুরআন এ আছে : মানুষ কি ভেবেছে আমি তার অস্থিসমুহ একত্র করতে পারব না? অবশ্যই আমি সক্ষম এমনকি তার আঙ্গুলের আগাকেও পূণরায় সৃষ্টি করতে। আজ থেকে চৌদ্দশত বছর আগের লোকেরা ফিঙ্গার প্রিন্ট সম্পর্কে খুব কম এ জানত। তবে কেন আল্লাহ কোরআন এ ফিঙ্গারপ্রিন্ট এর তুলনা দিয়েছেন? আসুন একটু দেখি।

fingerprint-5

১৮৭৫সালে জেন জিন্সেন নামক এক ইংলিশ বিজ্ঞানি আবিস্কার করেন যে আঙ্গুলের ছাপ একটি অসাধারন বিষয়। এর রেখার ধরন একটি আরেকটির চেয়ে ভিন্ন এবং সম্পূর্ণ আলাদা। এবং আপনি যা কিছু ছোঁবেন তাতেই আপনার আঙ্গুলের ছাপ বসে যাবে, এটা সবার ই জানা কথা তবে ১৪০০বছর আগের লোকেরা এ ব্যাপারে খুব কম এ জানতেন।

এই আঙ্গুলের আগার রেখার গঠন এবং গড়ন মাতৃগর্ভের প্রথম তিন মাসে হয়। এর অনেক ব্যাখ্যা রয়েছে, একটি হল মানুষের সকল  চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য এই আঙ্গুলের ছাপে এনকোডেড রয়েছে। সুতরাং আমাদের পুনরুত্থান এর সময় আল্লাহ আমাদের শরীর পুরাপুরি ফিরিয়ে দিবেন এবং আমাদের বিচার করবেন, আর শুধু আঙ্গুলির মাথার ছাপ দিয়েই আমাদের সকল চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য জানা সম্ভব। আঙ্গুলের আগা কে এক কথায় ডাটা ব্যাংক বলা জেতে পারে। নিশ্চয় ডিএনএ একটি অতি মূল্যবান আবিষ্কার।dna

ডিএনএ আবিকার হবার পর এই ধারনা বদলে গেছে যে কোষ তার অবস্থিত এলিমেন্ট নিয়ে একটি সাধারন সৃষ্টি নয়। আরও গভির গবেষণায় এর জটিলতা প্রকাশ পেয়েছে। মানুষের একটি ডিএনএ কোটি কোটি কোড সম্বলিত হয়, আমাদের চুলের রঙ থেকে শুরু করে নখ পর্যন্ত সকল তথ্য এই কোড এ থাকে. আঙ্গুলের আগার একটি ডিএনএ এর কোড ছাপালে লক্ষ পৃষ্ঠার হাজার কপি বই হবে। আর আঙ্গুলের আগার একটি ডিএনএ দিয়ে যে কারো সকল তথ্য জানা সম্ভব।

এ কথা তাহলে খুবই স্পষ্ট যে আল্লাহর কাছে আমাদের পুনরুত্থান কোন ব্যাপার এ না। কোরআন এ সকল বিজ্ঞানের সমাধান আছে যা আমরা জানি না। আশা করি ভবিষ্যতে আরও আকর্ষণীও পোষ্ট নিয়ে আপনাদের সামনে আসব। আল্লাহ হাফেজ।

comments

16 কমেন্টস

  1. বিপি–এর পোষ্টিং প্যানেলে আপনাকে স্বাগতম। 🙂

    অনেক তথ্য সমৃদ্ধ পোষ্ট করেছেন। আসলেই পুরো ব্যাপারটি অজানা ছিল। আশা করছি সামনের দিনেও এরকম লিখা পাবো আমরা।

    শুভ কামনা রইলো 🙂

  2. আচ্ছা ভাই এই পোষ্ট টা করতে আপনার কতটুকু খাটতে হয়েছে?

  3. আবু সাইদ ভাই, তেমন খাটতে হয় নি, এটাই আমার পরালেখার বিষয়। @আরিফ আপনাকে ধন্যবাদ। সুমন, আপ্নাকেও ধন্যবাদ।

  4. ভালো লাগলো, যদিও ব্যাপারটা প্রথম জেনেছিলাম ডাঃ জাকির নায়েক এর লেকচার থেকে।

  5. স্বাগতম বিজ্ঞান☼প্রযুক্তি পোষ্টিং প্যেনেল এ। অনেক তথ্য বহুল পোষ্ট। প্রথম লেখা হিসেবে অনেক ভালো হয়েছে। সামনে আপনার আরো ভালো ভালো পোষ্ট আশা করছি।

  6. প্লিজ ধর্ম আর বিজ্ঞানকে মেশাবেন না। প্রতিষ্ঠানিক ধর্মের ভিত্তি হচ্ছে অন্ধবিশ্বাস আর অন্ধবিশ্বস, যেখানে বিজ্ঞান মূল ভিত্তি হল যুক্তি, প্রমান আর পরীক্ষা। এরপর লেখার আগে গীতা বা কোরানকে না তুলে যুক্তি, পরীক্ষালব্ধ তথ্যই তুলে ধরুন।

    • ধর্ম যদি অন্ধ বিদ্দ্যাই হয় তাহলে আমি সেটাই চাই। আমার কাছে আমার ধর্মই সবচেয়ে বড় বিজ্ঞানের উৎস। এতে আপনার সন্দেহ থাকলে আমি আপনাকে প্রমান করে দেখাব। দয়া করে প্রাইভেট এ যোগাযোগ করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.