চলতি বছর নতুন অ্যাপল ওয়াচ বাজারে ছাড়তে পারে অ্যাপল। তবে দ্বিতীয় প্রজন্মের এই ডিজিটাল হাতঘড়ি সম্বন্ধে এখন পর‌্যন্ত তেমন কিছু জানায়নি অ্যাপল। কেজিআই সিকিউরিটিজের অভিজ্ঞ মিং ছো কুও’র মতে অ্যাপল ওয়াচের পরবর্তী সংস্করণে তেমন ভিন্নতা থাকবে না। কুও’র সাম্প্রতিক গবেষণা প্রতিবেদন অনুসারে, ফ্যাক্টর ডিজাইন গঠনের জন্য সীমিত পরিবর্তনসহ কিছু বিশেষ বৈশিষ্ট্যে পরিবর্তন আনা হবে পরবর্তী অ্যাপল ওয়াচে।

এ প্রক্রিয়ার সাথে আইফোনের তুলনা করা যেতে পারে। আইফোনের উন্নতিকরণে কিছু গৎবাঁধা নীতি অনুসরণ করে অ্যাপল। প্রতি দুবছর অন্তর সম্পূর্ণ নতুন নকশাসহ একটি ডিভাইস বাজারে ছাড়ে অ্যাপল। আর এই দুই বছরের মধ্যে পুনঃনকশা বজায় রেখে কিছু বিশেষ ফিচারে আপগ্রেড এনে এস নামে ফোন বাজারে ছাড়ে অ্যাপল।

অ্যাপল ওয়াচ ২ ডিভাইসের ভেতরে কী যন্ত্রাংশ থাকবে বা এটি নতুন কী ফিচার আনতে পারে সে সম্বন্ধে কিছু বলেননি কুও। তবে সংবাদমাধ্যম ৯টু৫ম্যাক’র প্রতিবেদক গার্মান মার্ক জুন মাসে তার এক প্রতিবেদনে অ্যাপল ওয়াচের পরবর্তী সংস্করণের কী থাকতে পারে তার একটি ধারণা দেন। ঐ প্রতিবেদনে গার্মান বলেন, অ্যাপল ওয়াচে ফেসটাইম ক্যামেরা যুক্ত করতে পারে অ্যাপল। আর তাহলে ঘড়ি থেকে ভিডিও কল করতে পারবে গ্রাহকরা। তাছাড়া ১ হাজার মার্কিন ডলার থেকে ১০ হাজার মার্কিন ডলারের মধ্যবর্তী ডিভাইসগুলো অনেক স্বাধীন এবং তাতে শক্তিশালী ব্যাটারী থাকবে।

সূত্র: টেক ইনসাইডার  

 

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.