বাংলাদেশের প্রথম মোবাইল আ্যপ ভিত্তিক গাড়ীর সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান ‘ট্যাক্সিওয়ালা’ ঢাকার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে অফিস যাত্রীদের নিরাপদে ও স্বাচ্ছন্দ্যে অফিসে যাতায়াতের জন্য চালু করেছে প্রথম অফিস সাটল সার্ভিস ‘জুম প্রো’। বাংলাদেশে এ জাতীয় সাটল সার্ভিস সেবা নিয়ে কাজ করছে ‘ট্যাক্সিওয়ালা’। নভেম্বরের ১ তারিখে চালু হওয়া এই সেবার আওতায় বর্তমানে ৩টি গন্তব্য চালু আছে তবে আরও কিছু গন্তব্যের পরিকল্পনা চলছে বলে এর উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন। এছাড়া একই গন্তব্য ও সময়ে নূন্যতম সাত জন যাত্রী হলেই নতুন গন্তব্য চালু করা সম্ভব।

ট্যাক্সিওয়ালা’র পরিচালক হাবিব রহমান জানান, নতুন গাড়ী নয়, বরঞ্চ বর্তমানে প্রচলিত রেন্ট-এ-কার সমূহের সাথে পার্টনারশীপ ব্যবস্থার মাধ্যমেই এ সার্ভিস দেওয়া হচ্ছে এবং উন্নত প্রযুক্তির ফ্লিট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম ও অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহৃত হচ্ছে। তিনি জানান, ঢাকার বর্তমানের ট্রাফিক জ্যামে ‘জুম প্রো’ কিছুটা হলেও স্বস্তি ফিরিয়ে আনবে। যাত্রীদের নিরাপত্তা ও স্বাচ্ছন্দ্য নিশ্চিতঃ করার লক্ষ্যে শুধুমাত্র প্রকৃত লাইসেন্সধারী, অভিজ্ঞ এবং বিশেষভাবে প্রশিক্ষিত ড্রাইভারগনই এই সার্ভিসে ব্যবহৃত গাড়ীগুলি পরিচালনা করেন, সেই সাথে সকল যাত্রীদের পরিচয় এবং ঠিকানাও ভেরিফাই করা হয়। গন্তব্য অনুযায়ী নির্দিষ্ট যাত্রী ছাড়া কোন অবস্থাতেই অন্যকোন যাত্রী বহন করা হয় না বলেও জানান হাবিব রহমান। বর্তমানে গন্তব্য ও রাস্তা অনুযায়ী ‘জুম প্রো’ সার্ভিসে মাসিক চুক্তির ভিত্তিতে একপথে ১০০-২৫০ টাকা প্রদান করতে হয়।

২০১৫ সালের মে মাসে দুই তরুন ফারাজ রহমান ও ওসামা মাকসুদ প্রথম ‘ট্যাক্সিওয়ালা’ সার্ভিসটি চালু করেন তবে এতদিন এর মাধ্যমে শুধুমাত্র “তমা ট্যাক্সি”র সার্ভিসই পাওয়া যেত। এই বছরের শুরুর দিকে একদল অভিজ্ঞ ও দক্ষ ব্যক্তি যুক্ত হয়ে এর সার্ভিসে ব্যাপক পরিবর্তন এবং পরিবর্ধন নিয়ে আসেন। বর্তমানে ট্যাক্সিওয়ালা “জুম প্রো” সার্ভিস ছাড়াও বিভিন্ন প্যাকেজভিত্তিক সার্ভিস প্রদান করছেন। এই সার্ভিস সম্পর্কে ০৯৬৭৮৭৭৪৪৬৬ নম্বরে ফোন করে জানা যাবে শুক্রবার ছাড়া অন্য যে কোন দিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.