ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম জানিয়েছেন, কোথাও কোন প্রকার প্রি-অ্যাক্টিভ সিম, অথবা ভেরিফাইড না করা সিম বন্ধ না পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট অপারেটরকে সিম প্রতি ৫০ ইউএস ডলার করে জরিমানা করা হবে। যা বাংলাদেশি টাকায় ৩ হাজার ৯৪৩ টাকা। এজন্য তিনি আগামী সপ্তাহ থেকেই আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বিশেষ অভিযান পরিচালনার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ জানাবেন বলেও জানিয়েছেন তারানা হালিম।প্রতিমন্ত্রী তারানা আজ তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এসব তথ্য জানান।

তিনি ফেসবুকে লিখেছেন, ‘গতকাল আমি ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগে সকল মোবাইল অপারেটরদের সিইও, বিটিআরসির প্রতিনিধিদল, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতিনিধিদল এবং অন্যান্য সংশ্লিষ্ট সকলকে নিয়ে একটি আলোচনা সভা করি।

‘সিম নিবন্ধনের কাজ ভালভাবে সম্পন্ন হয়েছে। ১১ কোটি ৬০ লাখ গ্রাহক তাদের সিম বায়োমেট্রিক্স পদ্ধতিতে নিবন্ধন করে তাদের নাগরিক দায়িত্ব পালন করেছেন।’

তিনি লিখেছেন, এখন আমাদের দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে ৭ জুলাই হতে সকল মোবাইল অপারেটরদের মাধ্যমে কার কতটি সিম, কোন অপারেটর এর তার জাতীয় পরিচয়পত্রের (NID)  বিপরীতে নিবন্ধিত হয়েছে তা প্রতিটি গ্রাহককে জানিয়ে দেওয়া হবে।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘এছাড়া আপনারা জেনে খুশি হবেন যে, এক গুলশান থানাতেই মোবাইল ফোন ব্যবহার করে সংগঠিত অপরাধের অভিযোগ আগে যেখানে প্রতিদিন সর্বনিম্ন ২০টি করে আসতো সেখানে বায়োমেট্রিক্স পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধন সম্পন্ন করার পর গত ১ জুন থেকে ০৭ জুন এ ধরনের একটি মাত্র অভিযোগ দায়ের হয়েছে যা আসলেই আমাদের আনন্দিত করে।’

তারানা হালিম জানান, বিটিআরসির হিসাব মতে ১ জুন থেকে ৭ জুন পর্যন্ত অবৈধ ভিওআইপির পরিমাণ নজিরবিহীন ভাবে কমে গেছে যার ফলে সরকারের রাজস্ব আয়ও বৃদ্ধি পেয়েছে।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.